কমপ্লিট সু স্টাইল গাইড (পুরুষ)

বলা হয়ে থাকে যে পোশাক পরিচ্ছেদ থেকে ব্যক্তিত্ব প্রকাশ পায়। জামা কাপড় এর মত জুতা ও অনেক বড় ভূমিকা পালন করে আপনার ইমেজে। তাই পড়ুন কমপ্লিট সু স্টাইল গাইড।

আজ আমরা আলোচনা করব জুতা পরার এবং কেনার সময়ে কোন বিষয় গুলো মাথায় রাখতে হবে এবং কোন ধরণের জুতা সমূহ অবশ্যই আমাদের থাকা উচিত।
জুতা পরার সময়ে এবং কেনার ব্যাপারে যেসব বিষয় মাথায় রাখতে হবে –

১. সঠিক সময়ে সঠিক জায়গায় সঠিক জুতা

সে অনুযায়ী জুতা পরা উচিত। আপনি জিম করার সময়ে যে জুতা পড়বেন তা পরে অবশ্যই অফিসে বা বিয়ে তে যেতে পারবেন নাহ। অকেশন বুঝে আপনাকে কি পড়বেন তা বাছাই করতে হবে।


২. কোয়ালিটি তে বিনিয়োগ করুন

প্রতিটি মানুষ তার জুতোতে কয়েক হাজার টাকা ব্যয় করতে পারে না; তবে, তার পরিবর্তে অন্য কোথাও অর্থ অপচয় করতে এবং প্রতি কয়েক বছরে নতুন নিম্ন মানের জুতা কিনতে পারেন তাদের মধ্যে অনেকে। এটি কখনই ভালো কৌশল নয়, কারণ নিম্ন মানের জুতা গুলো আঠার সাথে একসাথে রাখা হয় এবং কার্ডবোর্ড এবং কাগজের মতো সস্তা কাঁচামাল দিয়ে তৈরি করা হয় যা ভালো হয় না। আপনি একটু দাম দিয়ে ভালো মানের জুতা নিলে, দীর্ঘমেয়াদে অর্থ সাশ্রয় করতে পারেন। আমি এই বিষয়ে আরও কিছু বলতে করতে চাই; মান সম্পন্ন জুতা কিনতে, অনেককে ক্রয়ের জন্য বাজেট করতে হবে। এটি কোনো খারাপ বা বড়লোকি জিনিস নয়। বাস্তবে, এতে আপনার পণ্যের মানের প্রতি শ্রদ্ধা জাগাতে পারে এবং কেনা হলে জুতার সঠিক যত্ন নিতে আপনাকে উৎসাহিত করতে পারে। এবং অনেক বছর আপনি ব্যবহার করতে পারেন।

৩. যথাযথ ফিট এবং আরাম

জুতাটির সঠিক সাইজ কিনুন, এমনকি এর জন্য যদি কিছুটা বেশি টাকা প্রয়োজন হয় তবুও। এক সাইজ বড় যেমন খারাপ দেখাবে তেমনি ছোটো হলেও আপনি পরে আরাম পাবেন নাহ।
৪. জুতার যত্ন নিন

যতো যা ই করুন,জুতার খেয়াল না রাখলে তা ভালো থাকবে নাহ।

যে সব জুতা থাকা আবশ্যক

১. স্নিকার- মূলত জিম করার সময়ে বা খেলাধুলা, দৌড় এইসব এর সময়ে এগুলা পড়া হয় তবে casual ভাবে ও পড়া যায়।

২. Boat shoes – এগুলো দেখতে loafer এর মত তবে সোল রাবার এর।
বৃষ্টির মৌসুমে এগুলা পড়া যায়, লেদার না হওয়া তে ক্ষতি হয় না যাতে পানি তে।

৩. ডার্বি- এগুলো কে ড্রেস শু বলা হয়ে থাকে।

৪. অক্সফোর্ড  এগুলো ও ড্রেস শু এর অন্তর্ভুক্ত, তবে একটু casual ডিজাইন ও পাওয়া যায়।

৫. বুট- সাধারণত শীত প্রধান দেশ এ এইসব বেশি চলে তবে বুট সবার ই থাকা উচিত। বিভিন্ন রকম বুট পাওয়া যায়, যেমন chukka, Chelsea ইত্যাদি।

৬. Monk strap- স্যান্ডেল থেকে inspired হয়ে বেল্ট সহ এই জুতা গুলো এসেছে, এগুলো কেউ ফরমাল সেটিং এ পড়া হয়।

৭. লোফার- দেখতে ক্লাসিক আর গরমেও পরা যায়। অনেকের ই পছন্দ এবং আরামদায়ক ও বটে।

Leave a Reply

Home
Call Us
Message Us
Account
0